যমদূত যেন তাদের বিয়ের জন্যই বসেছিল

আন্তর্জাতিক

ছোটবেলার প্রেম, পেয়েছিল বিবাহের স্বীকৃতিও। কিন্তু এই বিয়েই যে তাদের জীবনে বিভীষিকা হয়ে উঠবে তা স্বপনেও কল্পনা করেনি হার্লে মরগ্যান ও রিয়ান বুডিয়াক্স। গত শুক্রবার ১৯ বছরের যুবক মরগ্যানের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তার ছোটবেলার বান্ধবী রিয়ান্ন বুডিয়াক্সের (২০)। বিয়ের দিনই একটি ট্রাকের চাপায় প্রাণ যায় নব দম্পতির।

মার্কিন গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, টেক্সাসের একটি চার্চে বিয়ে হয় মরগ্যান ও রিয়ানের। বিয়ে করা মাত্রই চার্চ থেকে বেরুতে গিয়ে উল্টো দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হন তারা।

কেইথ লঙ্গলিস নামের এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সবেমাত্র বিয়ে করে তারা চার্চ থেকে বেরুচ্ছিলেন। তাদের পেছনেই ছিল পরিবারের লোকজন। যে হলটিতে রিসেপশনের আয়োজন করা হয়েছিল তারা সবাই সেখানেই যাচ্ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, চার্চ থেকে বেরুনোর সময় মরগ্যানই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন। আর তখনই তাদের গাড়িটির সামনে একটি ট্রাক চলে আসে এবং সেটি মরগ্যানদের গাড়িতে ধাক্কা দেয়। গাড়িটি ধাক্কা খাওয়ার পর অনেকবার উল্টাতে উল্টাতে একটি জায়গায় গিয়ে পড়ে।

পুলিশ আরো জানিয়েছে, এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ট্রাক চালককে চিহ্নিত করা যায়নি। তবে দুর্ঘটনার তদন্তের ব্যাপারে তাদের পরিবারকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে অরেঞ্জ পুলিশ। যদিও এই দুর্ঘটনায় চালকের কোনো দোষ ধরা পড়েনি।

তবে ঘাতক ট্রাকের চালক সেদিন মাদকদ্রব্য খেয়ে গাড়ি চালাচ্ছিল কি না তাও ক্ষতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে রিয়ানের মা বলেন, ঘটনাটি যখন ঘটে তখন আমি ওদের পেছনেই ছিলাম, চোখের সামনে দেখলাম, আমার দুই সন্তান কীভাবে মা’রা গেল!